ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২৪

ঝুঁকিপূর্ণ ৪৫০ ভবনের তালিকা চূড়ান্ত, অভিযান চলবে


প্রতিকী ছবি

রাজধানীর ‘ঝুঁকিপূর্ণ’ মার্কেটগুলোতে সতর্কবার্তা জানাতে মাঠে নামছে ফায়ার সার্ভিস কর্তৃপক্ষ। ফায়ার সার্ভিস ৪৫০টি মার্কেট ও ভবনের তালিকা নিয়ে মাঠে কাজ করবে বলে জানিয়েছেন ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. মাইন উদ্দিন। এই তালিকায় গাউছিয়া মার্কেট, নূর ম্যানশন, রাজধানী সুপার মার্কেট, কাওরানবাজারের কিচেন মার্কেট, লিলি প্লাজা, ধানমন্ডি হকার্স মার্কেটসহ প্রায় অর্ধশত মার্কেটের নাম রয়েছে। ভয়াবহ আগুনে বঙ্গবাজার পুড়ে ছাই হওয়ার পরদিন গতকাল বুধবার ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের মহাপরিচালক এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এসব কথা জানান।

ফায়ার সার্ভিস জানিয়েছে, ২০১৯ সালে বঙ্গবাজার মার্কেট ঝুঁকিপূর্ণ বলে ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে নোটিশ টাঙিয়ে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তারা সতর্ক হয়নি। বঙ্গবাজার ছাড়াও আরো পাঁচটি মার্কেটে ফায়ার সার্ভিসের সতর্কতামূলক বার্তা টানিয়ে দেওয়া হয়েছিল।ফায়ার সার্ভিসের সূত্র জানায়, রাজধানীর নিউমার্কেটের গাউছিয়া মার্কেট সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। এই মার্কেটে প্রায় ৪ হাজার দোকান রয়েছে। গাউছিয়া মার্কেটের ভবনটি পুরোনো। মার্কেটে প্রবেশপথ অত্যন্ত সরু। মার্কেট খোলা থাকা অবস্থায় কোনো দুর্ঘটনা ঘটলে পদদলিত হয়ে মৃত্যুর আশঙ্কা থেকে যাবে। অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটলে ফায়ার সার্ভিস সেখানে পানিও দিতে পারবে না।গাউছিয়া মার্কেটের পাশে নূর ম্যানশনও একইভাবে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। টিকাটুলির হাটখোলা রোডে টিনশেডের রাজধানী সুপার মার্কেট কয়েক বছর আগেই ফায়ার সার্ভিস ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা করেছে। এর পরও সিটি করপোরেশন এই মার্কেটটি ভেঙে ফেলতে পারছে না।ফায়ার সার্ভিসের তালিকায় রাজধানীতে ঝুঁকিপূর্ণ ভবন রয়েছে প্রায় ৪০০টি। ঝুঁকিপূর্ণ ভবনগুলোতে অগ্নিনির্বাপণের কোনো ব্যবস্থা নেই। নেই কোনো জরুরি বহির্গমনের সিঁড়ি। ২০ তলা ভবনগুলোর বেশ কয়েকটিতে ফায়ার হাইড্রেন্ট (পানি সংরক্ষণ ব্যবস্থা) নেই। অনেক ভবনে সিঁড়িগুলো সরু আকারে নির্মাণ করা হয়েছে।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *