ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২৪

খাইরুন্নাস হওয়ার প্রত্যয়ে রমজনের ৪র্থ জুমা শেষ হলো


ইতালির রাজধানী রোমের বাংলাদেশীদের দ্বারা পরিচালিত সর্ববৃহত মসজিদ তরপিনাত্তারা মুসলিম সেন্টার জামে মসজিদে পবিত্র মাহে রমজানের ২৩তম দিনে জুমায় কোরআন, সুন্নাহ আলোকে জীবন গড়ার প্রত্যয় নিয়ে জুমার নামাজ শেষে হয়েছে।

খতিব মাওলানা হুমায়ুন রশীদ রাজী জুমা’র খুতবায় বলেন” মহান আল্লাহ তা‘লার বিধান মেনে আমাদেরকে জীবন যাপন করতে হবে, ইসলামের আলোতে জীবন গড়তে হবে। আমাদেরকে পবিত্র কোরআনের সাথে চার পর্যায়ে কোরআনের সাথে সম্পর্কে তৈরী করতে পারি। প্রথমস্তর, ক্বারিউল কোরআন যিনি কোরআন পড়তে পারেন এবং জানেন। দ্বীতিয়স্তর বলা হয় মাহিরুল কোরআনকে, এর অর্থ হলো যিনি পবিত্র কোরআনের উপর দক্ষতা অর্জন করেছেন, তিনি কোরআন পরতে পারেন বুঝতে পারেন অর্থাৎ কোরআন সম্পর্কে যার যথেষ্ট জ্ঞান রয়েছে।

তৃতীয়স্তর হলো আহলুল কোরআন অর্থাৎ তিনি কোরআন সম্পর্কে অধিক জ্ঞান রাখেন এবং অন্যকে শিক্ষা দিতে পারেন। অর্থাৎ তিনি কোরআনের পরিবার হয়ে গেছেন। চতুর্থস্তরকে বলা হয় খায়রুন্নাস অর্থাৎ তিনি মানুষের মধ্যে শ্রেষ্ঠ।

-খতিব জনাব হুমায়ুন রশীদ বলেন রমজান প্রায় শেষ হতে চলেছে এখনো যেটুকু সময আছে এই অল্প সময়ে বেশী বেশী ইবাদতের মাধ্যমে মহান আল্লাহ তা’লার নিকট থেকে ক্ষমা চেয়ে নিতে হবে।

তিনি আরো বলেন এবছর ইতালিতে বিভিন্ন দিক বিবেচনা করে সাদাকাতুল ফিতরা ৭ইউরো নির্ধারন করা হয়েছে। যেহেতু প্রবাসের মাটিতে খাদ্য সামগ্রী দিয়ে সাদাকাতুল ফিতরা আদায় করা সম্ভব নয় তাই টাকা দিয়েও ফিতরা আদায় হয়ে যাবে, ইনশাল্লাহ।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *